বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ১০ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাঙ্কিং ২০১৯

0
376

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সংসদের একটি আইন দ্বারা ২১ শে অক্টোবর, ১৯৯২ সালে প্রতিষ্ঠিত। সারাদেশে এর অধিভুক্ত ২৩০০ কলেজ এবং প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রদান করা হয় । ভর্তি শিক্ষার্থী সংখ্যা অনুসারে এটি বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম বিশ্ববিদ্যালয়। সদর দফতরটি ঢাকার উপকণ্ঠে গাজীপুরে অবিস্থত । RatingsBD এর গবেষণায় বাংলাদেশের সেরা ১০ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় (top 10 national university)

১. রাজশাহী কলেজ, রাজশাহী

রাজশাহী কলেজ বাংলাদেশের রাজশাহী শহরে অবস্থিত একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ১৮৭৩ সালে এই কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ঢাকা কলেজ ও চট্টগ্রাম কলেজ এর পরে রাজশাহী কলেজ বাংলাদেশের ৩য় প্রাচীনতম কলেজ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের ৬৮৫টি কলেজের ২০১৫ সালের তথ্যের ভিত্তিতে রাজশাহী কলেজ বাংলাদেশের সেরা কলেজ। বাংলাদেশে এই কলেজ হতেই সর্বপ্রথম মাস্টার্স ডিগ্রি প্রদান করা শুরু হয়। কলেজটি রাজশাহী শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। (top 10 national university)

২. ইডেন মহিলা কলেজ, ঢাকা

ইডেন মহিলা কলেজ (১৮৭৩ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত) (top 10 national university) বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার আজিমপুর এলাকায় অবস্থিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান। ১৮৭৮ সালে গভর্নর স্যার অ্যাসলি ইডেনের নামানুসারে এর নামকরণ হয় ইডেন গার্লস স্কুল। স্কুলটিতে ১৯২৬ সালে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হয়। সে থেকে এটি ইডেন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ও উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ নাম ধারণ করে। এই কলেজ থেকে উঠে আসা বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার, শেখ হাসিনা, সিদ্দিকা কবীর ইত্যাদি।

৩. ঢাকা কলেজ, ঢাকা

১৫ জুলাই ১৮৩৫ সালে প্রতিষ্ঠিত ঢাকা সরকারী বিদ্যালয় হিসাবে শুরু হওয়া ঢাকা কলেজ বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এটি বাংলায় প্রতিষ্ঠিত প্রথম ইংরেজি স্কুল ছিল। ১৮৪১ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা ইংলিশ সেমিনারী স্কুলকে একটি কলেজে বা একটি আঞ্চলিক উচ্চতর ইংরেজি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত করা হয়, যার নাম দেয়া হয় ঢাকা সেন্ট্রাল কলেজ বা সংক্ষেপে ঢাকা কলেজ।

৪. ঢাকা কমার্স কলেজ , ঢাকা

ঢাকা কমার্স কলেজ বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা শহরের মিরপুরে অবস্থিত একটি উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতকোত্তর কলেজ। ১৯৮৯ সালে প্রতিষ্ঠিত এ কলেজ স্ব-অর্থায়নে পরিচালিত, রাজনীতি ও ধুমপানমুক্ত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।এই কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের পাশাপাশি ৭ টি বিষয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর কোর্স চালু রয়েছে।কলেজটি সম্পূর্ণ বেসরকারী ভাবে প্রতিষ্ঠিত ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী পরিচালিত।

৫. ব্রজমোহন কলেজ, বরিশাল

ব্রজমোহন কলেজ বা বি.এম কলেজ বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ও প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এটি বাংলাদেশের দক্ষিণাংশে বরিশাল শহরে অবস্থিত। ১৮৮৯ সালে প্রখ্যাত সমাজসেবক, রাজনীতিবিদ ও শিক্ষানুরাগী অশ্বিনীকুমার দত্ত কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। তখন কলেজটি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এর অধিভুক্ত ছিল। সেসময়ে এ কলেজের মান এতই উন্নত ছিল যে অনেকে একে দক্ষিণ বাংলার অক্সফোর্ড বলে আখ্যায়িত করেন। ১৯৬৫ সালে কলেজটির জাতীয়করণ করা হয় ও বর্তমানে কলেজটি বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অধিভুক্ত। কলেজটিতে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ২২টি বিষয়ে ও স্নাতকোত্তর শ্রেণীতে ১৯টি বিষয়ে পাঠদান করে থাকে।

৬. সরকারী আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া

সরকারি আজিজুল হক কলেজ বাংলাদেশের একটি শীর্ষস্থানীয় ও ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এটি বগুড়া শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। এই কলেজ বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অধিভুক্ত। এটি বাংলাদেশের উত্তর অঞ্চলের বৃহত্তম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ১৯৩৮ সালের ৪ এপ্রিল বগুড়ায় একটি কলেজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে খাঁন বাহাদুর মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি এবং মৌলভী আব্দুস সাত্তারকে সাধারন সম্পাদক করে একটি কমিটি গঠিত হয়। এই কলেজটি ১৯৩৯ সালের জুলাই মাসে প্রতিষ্ঠিত হয়।

৭. আনন্দ মোহন কলেজ, ময়মনসিংহ

আনন্দ মোহন কলেজ বাংলাদেশের ময়মনসিংহ শহরের অবস্থিত একটি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কলেজটি ১৯০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। কলেজটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত। ১৯৭৭ খ্রিষ্টাব্দে এ কলেজে স্নাতকোত্তর শিক্ষা কার্যক্রম প্রবর্তিত হয়। বাঙালি শিক্ষাবিদ ও সমাজসংস্কারক আনন্দমোহন বসু ১৮৮৩ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ময়মনসিংহ ইনস্টিটিউশন। ১৮৮০ সালে এই ইনস্টিটিউশন কার্যক্রম শুরু করে ময়মনসিংহ সিটি কলেজিয়েট স্কুল নামে।

৮. কারমাইকেল কলেজ, রংপুর

অতীত ঐতিহ্য ইতিহাসসমৃদ্ধ বাংলাদেশের জনপদগুলোর মধ্যে রংপুর অন্যতম। বর্তমান জেলা শহরের ব্যস্ততা ও কলকাকলি থেকে তিন মাইল দক্ষিণে স্তব্ধ,নিঝুম সমাহিত সবুজের সমারোহে সমুজ্জ্বল পরিবেশে আজও কারমাইকেল কলেজটি সগর্বে দাঁড়িয়ে আছে এবং হাতছানি দিয়ে ডাকছে অগণিত ছাত্র-ছাত্রী,শিক্ষার্থী ,জ্ঞানপিপাসু ও পর্যটকদের। তৎকালীন স্থানীয় যে সমস্ত হৃদয়বান, বিত্তবান ও জমিদারদেও সহযোগিতায় গড়ে উঠেছিল কারমাইকেল কলেজ জিএল রায় তাদের মধ্যে  ১৪ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠার জন্য নিয়ে একটি গঠন করা হয়।

৯. সরকারী সাদাত কলেজ, টাঙ্গাইল

সরকারী সাদাত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ অথবা সংক্ষেপে করটিয়া সাদাত কলেজ, বাংলাদেশের টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়ায় অবস্থিত একটি ঐতিহ্যবাহী কলেজ। এটি হল অবিভক্ত বাংলায় মুসলমানদের প্রতিষ্ঠিত প্রথম কলেজ। ঢাকা-টাঙ্গাইল রোডের উপরে ঢাকা থেকে ৯০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে এবং টাঙ্গাইল থেকে ৭ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত।

১০. লালমাটিয়া মহিলা কলেজ, ঢাকা

লালমাটিয়া মহিলা কলেজ ঢাকা বাংলাদেশের একটি বেসরকারি কলেজ। আধুনিক সুযোগ সুবিধা সহ শ্রেণীকক্ষ, গবেষণাগার, গ্রন্থাগার এবং সাধারণ কক্ষ রয়েছে। কলেজটির যাত্রা শুরু ২৫ জন শিক্ষার্থী নিয়ে, ১২ বিঘা জমির ওপর ভবন। কলেজের এক স্মরণিকায় উল্লেখ করা হয়েছে, এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল লালমাটিয়া কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির উদ্যোগে।

RatingsBD Source 1 RatingsBD Source 2 RatingsBD Source 3 RatingsBD Source 4 RatingsBD Source 5

তথ্যসূত্র : RatingsBD (top 10 national university)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

14 + fourteen =